1. admin@sobsomoynarayanganj.com : admin : MD Shanto
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জনগনের টাকায় অস্ত্র ও গুলি ক্রয় করে জনগনের বিরুদ্ধে ব্যবহার সরকার – ইসহাত সরকার কথা নয় কাজে প্রমান করেছি : এড. জুয়েল শম্ভুপুরা কর্মী সম্মেলনে আওয়ামীগের দুই গ্রুপের সংর্ঘষ আহত ১৫ রূপগঞ্জে ধর্ষণের পর শিশু হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড ঝিনাইগাতীতে চাঞ্চল্যকর স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণ ও হত্যা মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতাও জিয়াউর রহমান – মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন ২০২৩-২৪ ইং জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ মনোনীত পরিষদের প্যানেল পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতাও জিয়াউর রহমান – মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল সোনারগাঁও থানা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের যৌথ অভিযানে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের ৫ সদস্য গ্রেফতার ঢাবির হলে ছাত্র নির্যাতনের প্রতিবাদে মশাল মিছিল

কর্মী সংকটে অস্তিত্বহীনতা ভুগছে মহানগর বিএনপি দুই নেতাকে বয়কট করে রাজপথে শক্তিশালী বিদ্রোহীরা

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৬৭ বার পঠিত

বর্তমান নিউজ.কমঃ

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটি ঘোষণা করার পর থেকে এ্যাড. সাখাওয়াত ও টিপুর নেতৃত্বকে বয়কট করে নিজেদের অবস্থান রাজপথে শক্তিশালী করে যাচ্ছেন স্থানীয় বিএনপির হেভীওয়েট নেতারা। মূলধারারা রাজনীতিকে পাশ কাটিয়ে হাজারো নেতাদের নিয়ে রাজপথে দলীয় কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছেন মহানগর বিএনপির একাংশের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, হেভীওয়েট ১৫ নেতা কমিটির নেতৃত্ব বয়কট করার পর বাকি ২৬ নেতাদের মধ্যেও কর্মসূচিতে তাদের উপস্থিতি অর্ধেকে নেমে এসেছে। এরফলে এখন কর্মী সংকটের কারনে অস্তিত্বহীনতা ভুগছে মহানগর বিএনপি বলে দাবি করেন স্থানীয় বিএনপির অধিকাংশ নেতা।

অপরদিকে, এ্যাড. সাখাওয়াত ও টিপুর নেতৃত্বকে বয়কট করে যেখানে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন মহানগর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও বন্দর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক এ্যাড. জাকির হোসেন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, সাবেক সহ-সভাপতি ও বন্দর থানা বিএনপির সভাপতি হাজী নুরুউদ্দিন আহম্মেদ, সাবেক সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম মজনু, সাবেক সহ-সভাপতি হাজী ফারুক হোসেন, সাবেক সহ-সভাপতি এ্যাড. রিয়াজুল ইসলাম আজাদ, সাবেক সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কাউছার আশা।

এদিকে, চলতি বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর মহানগর বিএনপি আংশিক ৪১ সদস্য আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করার পর থেকে মহানগর বিএনপির শীর্ষ স্থানীয় অধিকাংশ নেতৃবৃন্দ সাখাওয়াত ও টিপুর নেতৃত্বকে বয়কট করার পর, কমিটির দীর্ঘ তালিকা স্বল্প হতে শুরু করেছে। হেভীওয়েট ১৫ নেতা কমিটির নেতৃত্ব বয়কট করার পর বাকি ২৬ নেতাদের মধ্যেও কর্মসূচিতে তাদের উপস্থিতি অর্ধেকে নেমে এসেছে।

মহানগর বিএনপির আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করার পর থেকেই সাখাওয়াত ও টিপুর নেতৃত্ব এখন কর্মী সংকটের কারনে অস্তিত্বহীনতা ভুগছে।

এ বিষয়ে মহানগর বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী বলেন, এ্যাড. সাখাওয়াত ও টিপুর পিছনে মহানগর যুবদলের নেতৃবৃন্দ না থাকলে তাদের রাজনীতি এতো দিনে অস্তিত্বহীন হয়ে পরতো। মহানগর যুবদল সাখাওয়াত টিপুর মান রক্ষা করছে।

তারা আরও বলেন, যারা তাদের মাঠের রাজনীতি কর্মী বাহিনী দিয়ে ধরে রেখেছে তাদের নিয়েই কৌশলের রাজনীতি করছে মহানগর বিএনপির দুই নেতা। আর সেটা বাস্তবায়ন হওয়াটা এখর শুধু সময়ের ব্যাপার। মহানগর যুবদলের দুই নেতাকে মাইনাস করে সাখাওয়াত টিপুর পছন্দের নেতাদের দিয়ে কমিটি অনেকটাই প্রস্তুত। দেশের সার্বিক পরিস্থিতির কারনে ও কেন্দ্রীয় যুবদলের সভাপতি কারাগারে থাকায় সেটা বাস্তবায়নে সময় নিচ্ছে।

তারা আরও বলেন, কমিটি ঘোষণা করার পর থেকে মহানগর বিএনপির (বিদ্রোহী) একাংশের হেভীওয়েট নেতাদের দমাতেই মামলা হামলা সহ নানা কুটকৌশল অবলম্বন করছেন। ক্ষমতাশীনদের সাথে আতাঁতের রাজনীতি করা গুটি কয়েক নেতা। তারা পুলিশের সোর্স হয়ে নেতাকর্মীদের বাড়ির সীমানা প্রাচীরের ঠিকানা পর্যন্ত পুলিশকে দিয়ে সহযোগীতা করছেন হয়রানী করার জন্য।

এর প্রধান কারন যে কোন মূল্যেই টিকাতে হবে মহানগর বিএনপির কমিটি। নতুবা কর্মী ও জনসমর্থনের কাছে পরাজয় বরন করতে হবে কমিটির দুই শীর্ষ নেতাদের।

এদিকে, এ্যাড. সাখাওয়াত ও টিপুকে বয়কট করার পর বিদ্রোহী নেতাদের সাথে রাজপথে সক্রিয় ভাবে রাজনীতি করে আসছেন মহানগর বিএনপির সাবেক যুব – বিষয়ক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন শোখন, সাবেক ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সরকার আলম, বন্দর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. বিল্লাল হোসেন, সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুর ইসলাম মিঠু, সাবেক কাউন্সিলর হান্নান সরকার, কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ, মহানগর বিএনপি নেতা আলমগীর হোসেন, শহীদুল ইসলাম রিপন, সাফী আহম্মেদ, আল মামুন, আবুল হোসেন সরদার, মোহাম্মদ হোসেন কাজল এবং মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি ও ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ সহ আরো অনেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Bartoman News
Theme Customized By Theme Park BD