1. admin@sobsomoynarayanganj.com : admin : MD Shanto
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নিখোজের ১০ দিন পর ৫ বছরের শিশু আয়াতের খন্ড খন্ড লাশ উদ্ধার রূপগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ফতুল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটির বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত নেত্রকোণায় নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদ দিবস-২০২২ পালিত রূপগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার প্ররোচনায় অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন বিক্ষোভ অবরোধ নেত্রকোণার মোহনগঞ্জের নিরীহ কৃষকদের হয়রানীর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন নেত্রকোণার মদনে সংবাদ প্রকাশের জেরে মারধর, সাংবাদিকসহ আহত ৩ নেত্রকোণায় বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ- ২০২২ পালিত রূপগঞ্জে চনপাড়ার ‘ডন বজলু’ ৬ দিনের রিমাণ্ডে শেরপুর হাসপাতালের ৬ তলা থেকে লাফ দিয়ে রোগীর আত্মহত্যা

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত জাকির খান গ্রেফতার

  • আপডেট সময় : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৭৪ বার পঠিত

বর্তমান নিউজ.কমঃ

নারায়ণগঞ্জের পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী জাকির খানকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব বিস্তারিত জানাবে।

জাকির খান এক সময়ে ছিলেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি। পরবর্তীতে বিএনপির রাজনীতিতে জড়ানোর পরেই ক্রমশ খলনায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন তিনি। আলোচিত নাম জাকির খান যার নামে ০৪টি হত্যাসহ অসংখ্য মামলা রয়েছে এবং বিভিন্ন সময়ে তিনি এসকল মামলায় জেল খাটেন। জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তিনি আরও দুর্ধর্ষ হয়ে ওঠেন।

জাকির খান দীর্ঘ প্রায় দেড় যুগেরও কাছাকাছি সময় ধরে দেশের বাইরে অবস্থান করেন। পরে তিনি দেশে ফিরে আসেন।

সূত্র বলছে, ১৯৮৯ সালে জাকির খানের রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রবেশ করেন। ১৯৯১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর কামালউদ্দিন মৃধার নেতৃত্বে তিনি ১৯৯৪ সালে বিএনপিতে যোগ দেন।

এক পর্যায়ে দেওভোগ এলাকার অপর শীর্ষ সন্ত্রাসী দয়াল মাসুদকে শহরের সোনার বাংলা মার্কেটের পেছনে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে দুধর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে শহরে পরিচিত হয়ে উঠেন জাকির খান।

১৯৯৬ সালে বিএনপি সরকারের শেষ দিকে জাকির খান শহরের খাজা সুপার মার্কেটে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে জেলে যান।

একই বছরে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার ৭ মাসের মাথায় কাশীপুর বাংলাবাজার এলাকায় এক ঠিকাদারের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় দ্বিতীয় দফায় জাকির খানের ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড হয় এবং জেলে যান।

১৯৯৯ সালে স্বল্প সময়ের জন্য জেল থেকে বের হয়ে জাকির খান জেলা ছাত্রদলের সভাপতির পদটি পেয়ে যান। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পরও প্রায় ৫ মাস জেলে থাকেন জাকির খান।

সর্বশেষ ২০০৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও বিআরটিসির তৎকালীন চেয়ারম্যান তৈমুর আলম খন্দকারের ছোট ভাই ব্যবসায়ী নেতা সাব্বির আলম খন্দকার আততায়ির গুলিতে নিহত হয়। এ ব্যাপারে জাকির খানকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন তৈমুর আলম খন্দকার।

এরপর জাকির খান নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে পাড়ি জমান থাইল্যান্ডে। পরে আবার তিনি দেশে গোপনে ফিরে আসেন।

এরপর থেকে তিনি পরিচয় গোপন করে ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় স্বপরিবারে বসবাস করছিলেন। র‌্যাব-১১ এর ধারাবাহিক কার্যক্রমের প্রক্রিয়ায় দীর্ঘদিন পলাতক র্শীষ সন্ত্রাসী জাকির খান এর বিষয়ে র‌্যাব-১১ খোঁজ-খবর শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ রাতে র‌্যাব-১১ এর নারায়ণগঞ্জের একটি বিশেষ অভিযানে ডিএমপি ঢাকার ভাটারা থানার বসুন্ধরা এলাকা হতে ০১টি বিদেশী পিস্তলসহ জাকির খানকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত জাকির খানের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Bartoman News
Theme Customized By Theme Park BD