1. admin@sobsomoynarayanganj.com : admin : MD Shanto
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৪:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ডেঙ্গুতে রেকর্ড ৬৩৫ রোগী হাসপাতালে, একজনের মৃত্যু সিদ্ধিরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সংগ্রহ ও মতবিনিময় সভা শক্তি রূপিনী দুর্গা মোবাইল চুরির অপবাদে কিশোরকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উইঘুর মুসলিমদের উপর চীনের নির্যাতন বন্ধ করার দাবিতে পাগলায় জাগ্রত মুসলিম জনতার উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত বন্দরে মিশুক চালক কায়েসের হাত-পা বাধা জবাইকৃত লাশ উদ্ধার বন্দরে সরকারী স্কুলের জায়গা দখল করে রেখেছে ভূমিদস্যু জালাল আমাদের বিরুদ্ধে তারা প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে ষড়যন্ত্র করছে : মির্জা আজম খেলাধুলা মন-মানসিকতা ও শারিরীক বিকাশ ঘটায় : জাকির হোসেন চেয়ারম্যান বন্দর রুপালী আবাসিক এলাকায় অবৈধ মেলা

ঝিনাইগাতীর কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাইম

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
  • ৪৮ বার পঠিত

মোঃ বিল্লাল হোসেন (শেরপুর) প্রতিনিধিঃ

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের মানবেতর জীবনযাপন: তাদের সার্বিক খোঁজখবর নিতে প্রকল্পটি পরিদর্শন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম।

১৯ জুন রোববার দুপুরে উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামে কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পটি পরিদর্শন করেন তিনি। প্রায় দুই যুগের ব্যাবধানে এ প্রকল্পে নির্মানাধীন সবকটি ব্যারাক জরাজীর্ণ।প্রত্যেক বছরের বর্ষাকালে ঘুম হারাম হয়ে যায় আর বৃষ্টি হলে তো কথায় নেই সবকটি ঘর জরাজীর্ণ থাকায় সারারাত জেগেই কাটাতে হয় কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দাদের। আবার অনেকেই বৃষ্টিতে পলিথিন মুড়িয়ে ঘরের ভেতরে বসে থাকেন তারা।

১৯৯৯ সালে উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের কান্দুলী গ্রামে নির্মাণ করা হয় আবাসন প্রকল্পটি। তৎকালীন সময়ে কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প’টি বাস্তবায়ন করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বাস্তবায়নকারী ইউনিটঃ ৩৭ এস.টি ব্যাটালিয়ন মোমেনশাহী সেনানীবাস। কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৬’টি ব্যারাক গড়ে তোলে ৬০’টি কক্ষ নির্মাণ করা হয় সেখানে। আর নাম রাখা হয় কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প।

এ প্রকল্পে রয়েছে, একটি মসজিদ,কবরস্থান,পুকুর,সমবায় সমিতি ,কমিউনিটি সেন্টারসহ টিনের ছয়টি ব্যারাকে দশটি করে কক্ষ। ওই সময় আড়াই শতাংশ জমি সহ প্রতিটি ভূমি হীন পরিবারকে বরাদ্দ দেয়া হয় ১’টি করে ঘর। প্রত্যেক ব্যারাকে গরিব অসহায় হতদরিদ্র ভূমিহীন ছিন্নমূল পরিবারদের বসবাসের জায়গায় হয় সেখানে।

কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ন প্রকল্প নির্মাণকালের প্রায় ২৩ বছর পেরিয়ে যাচ্ছে। সংস্কার না হওয়ার ফলে নানা কষ্ট নিয়ে বসবাস করছেন তারা। সেখানে বসবাসকারী বাসীন্দারা বেশির ভাগ শ্রমজীবী। কেউ অন্যের বাড়িতে শ্রম দেন আবার অনেকেই কৃষি কাজে জীবীকা নির্বাহ করে সাংসারিক খরচা যোগান দেন তারা।

আজ দুপুরে কুঞ্জবিলাশ কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন শেষে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম সাংবাদিকদের বলেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান, কুঞ্জবিলাস কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে সংস্কার হবে। দ্রুতই এ কাজ শুরু হবে বলেও জানান তিনি।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ লাইলী বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ উমর আলী,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ মজিবর রহমান,ধানশাইল ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, কান্দুলী আশ্রয়ণ প্রকল্পের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Bartoman News
Theme Customized By Theme Park BD